ফেইসবুক পিক্সেল কি ? ডিজিটাল মার্কেটিং করার সময় এটি কেন ব্যবহার করে ?

Spread the love

ফেইসবুক পিক্সেল

ফেইসবুক পিক্সেল একটি  জাভাস্ক্রিপ্ট ট্রেকিং কোড। এটি একধরণের রোবট। ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দেয়ার সময় বিক্রয়ের পরিধি বোঝার জন্য ফেইসবুক ফিক্সেল ব্যবহার করা হয়।  এটি প্রোডাক্ট মার্কেটিং এর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন  বিষয়। বিজ্ঞাপন দেয়ার আগে যদি ফেইসবুক পিক্সেল ব্যবহার না করেন, তাহলে মার্কেটিং করে কিপরিমান ভিসিটর আপনার প্রোডাক্ট কিনলো বা কিনলোনা সেটি বুঝতে পারবেননা।  তাহলে আসুন এই আর্টিকেলে আমরা এই ফেইসবুক পিক্সেল সম্পর্কে শিখবো।  এবং প্রোডাক্ট বিক্রয়ের ফানেলে এটি কিভাবে ব্যবহার করে সেটি দেখাবো। 

কেন ফেইসবুক পিক্সেল ব্যবহার করবেন ?

আমরা কোনো প্রোডাক্ট অথবা কোনো সার্ভিসকে গ্রাহকের কাছে পাঠানোর জন্য বিজ্ঞাপন বুস্ট করে থাকি।  এই বেপারটি অনেকেই জানে। বিজ্ঞাপন বুস্ট দেয়ার পর আমরা শুধু দেখতে পাই কতগুলো ভিউ , লাইক , কমেন্ট আসলো। কিন্তু এর বাহিরে আরো অনেক গভীর বিষয় রয়েছে যেটি আমরা জানিনা।  

যেমন আমরা যদি কোনো প্রোডাক্ট প্রমোট করি তখন ভিসিটর আমাদের ওয়েবপেজে ঢুকবে, কিন্তু সেখানে সে কি করছে সেটি বুঝতে পারিনা।  আপনি কাস্টমারের গতিবিধি যদি না বুঝতে পারেন, তাহলে মার্কেটিং করে কোনো লাভ হলোনা। 

তাই একজন ভিসিটর আমাদের সেলস পেজে গিয়ে কি করলো সেটি বোঝার জন্য এই ফেইসবুক পিক্সেল কোড টি ব্যবহার করতে হবে।  এবং সেলস পেজের কনভার্সন (বিক্রিয় পরিমান) বুঝার জন্য এই পিক্সেল ব্যবহার করা অতি জুরুরি।  

কনভার্শন বিজ্ঞাপন কি?

কনভার্শন বিজ্ঞাপন

যারা মার্কেটিং করে তাদের জন্য এই শব্ধটি অনেক কমন।  কিন্তু যারা নতুন করে বিজ্ঞাপন দিচ্ছেন তারা ব্যাপারটি জানেনা।  আপনি যদি বেশি পরিমান সেলস পেতে চান তাহলে অবস্যই কনভার্শন বিজ্ঞাপন দিতে হবে। বিজ্ঞাপনে সর্বাধিক ফলাফল পাওয়ার ব্যাপারটিকে ডিজিটাল মার্কেটিং এর  ভাষায় এটিকে (ROI -return-on-investment) বলে।  

আমি জানি আপনি ব্যাপারটি এখনো পুরোপুরি ক্লিয়ার হননি।  এটি উদহারণ দিচ্ছি – ধরুন আপনার একটি ওয়েবসাইট আছে। এবং সেখানে একটি ল্যান্ডিং পেজ বা প্রোডাক্ট পেজ আছে, যেটি আপনি গ্রাহকের কাছে প্রচার করতে চান। 

এবং আপনার পেজটি ফেইসবুক এর মাধ্যমে বুস্ট করলেন, এবং সেখানে ১০০০ ভিসিটর আসলো।  

কিন্তু আপনি এটি কিভাবে বুঝবেন যে , আপনার ওয়েবপেজ এতগুলো ভিসিটর আসলো? আপনার ওয়েবপেজ আর ফেইসবুক কিন্তু দুটি আলাদা বিষয়।  

তাই কোনো পেজ প্রমোট করার পর গ্রাহক যখনি একশন বাটনে ক্লিক করে তখনি আপনার পেজেটি ওপেন হয়।  এবং ভিসিটর এখানে বিচরণ করে।  কিন্তু এটি বুঝার কোনো উপায় নেই।  কিন্তু এই বিষয়টি বুঝার জন্য, আমাদেরকে ফেইসবুক পিক্সেল ব্যবহার করতে হয়।  

বিজ্ঞাপন দেয়ার আগে এই কোডটি আপনার ল্যান্ডিং পেজে রেখে দিলেই সকল ভিসিটরদের গতিবিধি বুঝতে পারবেন।  এবং যতবার আপনার প্রোডাকটি কিনবে ততবার এই কোডটি ফেসবুকে ইনফরমেশন দিবে।  এবং ফেইসবুক আরো বেশি আপনার বিজ্ঞাপনটি এই একই শ্রেণীর লোকদের কাছে উপস্থাপন করবে।  

কিভাবে ফেইসবুক পিক্সেল ইনস্টল করবেন ?

ফেইসবুক পিক্সেল ইনস্টল করার জন্য প্রথমে এড একাউন্ট ওপেন করুন।  এরপর ইভেন্ট মেনেজমেন্ট ট্যাবটি সিলেক্ট করুন।  এখান থেকে আপনি কোডটি কপি করুন, এবং আপনার ল্যান্ডিং পেজে রেখে দিন। 

ফেইসবুক পিক্সেল ইনস্টল

এই কোডটি আপনার ওয়েবসাইটের হেডার এবং যেকোনো পেজে রাখতে পারেন।  তাহলে কোনো ভিসিটর আপনার সাইটেই কি করছে সেটি দেখতে পারেন। 

আমরা অনেকেই বিজ্ঞাপন ছাড়ার আগে অনেক কিছু না বুঝে বিজ্ঞাপন ছেড়ে দেয়। কারণ আমরা অনেক ক্ষেত্রে তাড়াহুড়ো করি।  এটি আমাদের একটি স্বাভাবিক আচরণ। তবে এই আচরণ থেকে বের হতে হবে।  কারণ আপনাকে সফল হতে হবে। তাই সব কিছুই গভীর ভাবে পর্যবেক্ষণ করুন।  বেশি বেশি ব্লগ পড়ুন।     

ফেসবুক পিক্সেল ইনস্টল করার পরের ধাপ হলো কাস্টম কনভার্সন সেটাপ করা।  

কাস্টম কনভার্সন হলো, ফেইসবুক পিক্সেল যখন আলাদা আলাদা ওয়েবপেজ গুলোকে ট্রেক করে, তখন এই কোডগুলোকে আলাদা করে বাড়তি কিছু করার ক্ষমতা দিতে হয় , এবং এই ক্ষমতা বা অনুমতি কাস্টম কনভার্সন দিয়ে থাকে।

যেমন কোনো ভিসিটর যদি আমাদের ল্যান্ডিং ফর্ম টি পূরণ করে সাবমিট করে তখন তাকে আমার আরেকটি পেজ প্রদর্শন করি।  যেমন থ্যাংক ইউ ফর ইওর সাব্স্ক্রাইবিং।  এই থ্যাংক ইউ পেজ টিকেও ট্রেক করার জন্য কাস্টম কনভার্শন এর প্রযোজন।  তাহলে আমরা বুঝতে পারবো আমাদের কয়টি ফরম সাবমিট হয়েছে।    

কাস্টম কনভার্সন সেটাপ করার জন্য ইভেন্ট মেনেজারে ওপেন করুন সেখান থেকে কাস্টম কনভার্শন এক্টিভ করুন।  আমি আরো একটি কথা বলতে চাই সেটি হলো, আমরা যখন লিড (MAIL SABMISSION JOB ) এর কাজ করি,  তখন কোনো ভিসিটর যদি ফর্ম সাবমিট করে তখন আমরা একটি লিড পাই , মূলত এই সিগন্যালটি দেয় কাস্টম কনভার্সনে।  এবং কোনো ভিসিটর THANK YOU পেজে গেলে সেটি কনভার্সন হিসেবে ধরা হয়।  

কাস্টম কনভার্সন সেটাপ হয়ে গেলে আপনি  বিজ্ঞাপনটি চালু করতে পারেন।  

অনেক বড় বড় কোম্পানি তাদের বিজ্ঞাপনের আগে এই কাজটি করে থাকে।  এবং আপনি যদি ফ্রীলান্সিং মার্কেট প্লেসে কাজ করে থাকেন তাহলে এই ধরণের সার্ভিস অনেক দেখতে পাবেন।  যেমন FIVERR  (ফ্রীলাসিং মার্কেটপ্লেস ) এ এই ধরণের অনেক গিগ দেখতে পাবেন।  

পিক্সেল সেটাপ করার পর এখন আপনি একটি কনভার্সন এডস রান করতে পারেন।  এইজন্য facebook ads manager সিলেক্ট করুন এবং create এ ক্লিক করুন।  এখানে ক্যাম্পেইন অবজেক্টে conversion সিলেক্ট করুন।  এরপর conversion event location থেকে “website” সিলেক্ট করুন।  কারণ এখন আমরা ওয়েবসাইট ভিত্তিক ভিসিটরদের জন্য ক্যাম্পেইন করবো।  এবং পিক্সেল যেন ওয়েবসাইট ট্রেক করে সেজন্য  “website” সিলেক্ট করবো।   

এর পরের ধাপ আপনি নিজেই পারবেন।  কারণ অন্যসব ধাপগুলো সাধারণত অ্যাড যেভাবে রান করে ঠিক একই নিয়মে হবে।  

ধন্যবাদ ।

Daudul Islam

Daudul Islam

Digital Marketing Consultant from Dhaka, Bangladesh. He is also an Author, Speaker and Trainer in the field of Digital Marketing.

Daudul Islam Signature

আপনার ঘর হোক ডিজিটাল এজেন্সি !

ডিজিটাল মার্কেটিং এর আর্টিকেল পেতে আপনার ইমেইল সাবমিট করুন ।


Spread the love

1 thought on “ফেইসবুক পিক্সেল কি ? ডিজিটাল মার্কেটিং করার সময় এটি কেন ব্যবহার করে ?”

Leave a Comment