Select Page

ভবিষ্যতে বাংলাদেশে ডিজিটাল মার্কেটিং এর অবস্থা কেমন হবে সেটি যদি জানতে চাই তাহলে নিচে এর কিছু  দিক নির্দেশনা দেখি ।

একটি উধাহরন দেয় – কোন একটি বিষয় , বস্তু, বা  সার্ভিস যদি ভবিষ্যতে অধিক ব্যাপ্তি লাভ করে তাহলে আগে থেকেই এর প্রভাব বুঝা যায় ।

কি কি বিষয় পরিলক্ষিত হলে বুঝে নিবেন এর ভবিষ্যৎ ভালো ?

১. সারচিং ভেলু ।

২. কম্পিটিটরস

৩. নিউজ পেপার হেডিংস

৪. অনলাইন  নিউজ ।

৫. ইউজার  ট্রেনডস ।

সারচিং ভেলু

আমরা যখন কোন কিছু লিখে গুগল এ সার্চ করি তখন গুগল আমাদের কে একটি সার্চ রেজাল্ট দেখায় । সেখানে আপনি সার্চ ভেলু দেখতে পারেন । এর জন্য একটি টুলস রয়েছে । যার নাম KeyWords Everywhere.

এই টুলস টি আপনারা এক্সটেনশন এ  এড করে নিলেই ভেলু টি দেখতে পাবেন ।

কিভাবে এড করবেন ?

প্রথমে গুগল সার্চ এ লিখুন “keyword everywhere extention”

নিচে ছবিতে দেখুন

এর পর  অ্যাড টু ক্রোম বাটন এ ক্লিক করুন।

Keyword everywhere

ad to chrome

এক্সটেনশন টি পুরো অ্যাক্টিভ করার পর গুগল সার্চ এ কিছু একটা লিখুন, যেটির মার্কেট ভেলু আপনার  জানা দরকার ।  যেমন আমি লিখেছি “ডিজিটাল মার্কেটিং ইন বাংলাদেশ” ।

নিচের  ছবিতে দেখুন এর সার্চ ভেলু ৪৮০ দেখাচ্ছে ।

480/mo =   বলতে বুজায় প্রতি মাসে ৪৮০ জন ইউজার এই লেখাটা লিখে সার্চ করে ।

এই সার্চ ভেলু বাংলাদেশ এর বাজারের জন্য বিশাল ব্যাপার । এবং আগামি ৩ বছর পর এর ভেলু হতে পারে ৪০০০ এর ও বেশি ।

এর ভেলু আরও কেন বাড়তে পারে সেটি জানার জন্য ভিবিন্ন দেশের ইন্টারনেট ব্যাবহার কারিদের একটি তালিকা দেখব ।

Internet users by country 2017 – Wiki

উইকিপিডিয়ার মতে ২০১৭ সালে বেশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল চায়না । তাদের রাঙ্ক ছিল ১ এ । এবং ইন্ডিয়া ছিল ২য় অবস্থান এ ।  এর ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ ছিল ২৬ তম রাঙ্ক এ ।  এবং ইউজার সংখ্যা ছিল ২,৯৭,৩৮,০০০ । প্রায় ৩ কোটির কাছাকাছি ।

এবার ২০১৮ এর অবস্থান দেখব । ওয়িকিপিডয়া ছাড়াও আরও একটি ওয়েব সাইট এর পাওয়া তথ্য থেকে নিচের ছবিটি দেয়া হল ।

Internet users by country 2018 – By Internet World Stats

Internetworld Stats এর মতে ২০১৮ সালে চায়নার অবস্থান ১ । ইন্ডিয়া ২ । এর ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের অবস্থান ১০ । এবং ইন্টারনেট  ইউজার এর সংখ্যা প্রায় ৯ কোটির  কাছাকাছি । ব্যাপার তা অবাক করার মত । ১ বছরের মাথায় এত পরিমান ইউজার কিভাবে বাড়ল ।

এখন আর বুজতে বাকি নেই ডিজিটাল মার্কেটিং এর সার্চ ভেলু এত ভালো কেন । তাই বাংলাদেশে এটি আশার সঞ্চার করছে । এবং চাকুরির বাজারের আরেকটি পদ যুক্ত হল । এখন শুধু এর প্রসারই ঘটবে ।

তাই নিজেকে এক্সপার্ট করে ফেলুন । এবং নিজে একটি ব্লগ খুলে অভিজ্ঞতা গুলো শেয়ার করুন । এবং আপনার ব্লগটিকে মার্কেটিং করে পণ্য বিক্রি করুন ।

Competitors

বাংলাদেশে ডিজিটাল মার্কেটিং এর বাজারে অনেক কম্পিটিশন শুরু হয়েছে । আপনি ইউটিউব এ সার্চ করলেই জানবেন।  ইউটিউব-এ এর প্রচুর টিউটোরিয়াল রয়েছে ।

তাই এর কম্পিটিশন দেখে বুজে নেয়া যায় এর  ভবিষ্যৎ অনেক উজ্জ্বল ।

 News Paper Headings :

বর্তমানে আমাদের দেশে  অনেক গুলো দৈনিক পত্রিকা প্রকাশিত হয়।  এর পাশাপাশি অনেক গুলো অনলাইন দৈনিক ও রয়েছে।  এবং ফেস বুক এ নিউজ এর কত হাজার পেজ রয়েছে সেটা একমাত্র ফেসবক ই জানে।

ব্যক্তিগত ভাবে আমি  অনলাইন নিউজ ই বেশি দেখি।  সেখানে আইটি পেজ এ ফ্রীল্যানসিং নিয়ে অনেক অভিজ্ঞ ব্যক্তিদের  অভিজ্ঞতার কথা রয়েছে।  এর পাশা পাশি ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপর বেশ লিখা রয়েছে।  সেখানে দেখতে পাই এর দারুন বভিষ্যৎ।

যেহেতু ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে নিয়মিত  নিউজ হয় সেহেতু  বলতে পারি এর বভিষ্যৎ ভালো।

User trends

ইউজার ট্রেড বলতে কোন বিষয় কতবার সার্চ হয় বা কি পরিমান  ইউজার একটি বিষয়  দেখে তার ভেলুই হল ইউজার ট্রেনড ।

যেমন ধরুন ডিজিটাল মার্কেটিং ইন বাংলাদেশ – এই কথাটি  লিখে  যদি গুগল ট্রেনড এ সার্চ করে তাহলে  আমরা দেখব  কি পরিমাণ ইউজার ডিজিটাল মার্কেটিং  নিয়ে গুগলে  সার্চ করে । নিচে দেখুন.

আপনি গুগলে গুগল ট্রেন্ড লিখে দিলে প্রথমেই লিংক টি দেখাবে।  এই লিংক টি ওপেন করুন এবং আপনি “ডিজিটাল মার্কেটিং” কথাটি লিখে সার্চ করুন এবং দেখুন কি পরিমাণ  ভ্যালু দেখায়।

ডিজিটাল মার্কেটিং

ডিজিটাল মার্কেটিং

ডান পাশের অপশন থেকে বাংলাদেশ  সিলেক্ট করুন। এবং সার্চ বার  এ  লিখুন “ডিজিটাল মার্কেটিং” .  কী বোর্ড থেকে এন্টার  প্রেস করুন. এবং দেখুন বাংলাদেশের সিটি গুলোতে কি পরিমান সার্চ হয়.

google trend result

একইভাবে আপনার ইচ্ছামতো যেকনো  বিষয়ের ভ্যালু জানতে পারবেন।  এবং আপনি কোনো প্রোডাক্ট নিয়ে যদি ব্যবসা করতে চান সে বিষয়েও জানতে পারেন।

 

মূল বেপার হলো আপনি কি করতে চান সেটি ভালো করে রপ্ত  করতে হবে।   এবং সেই দিকে সফল না  হওয়া পর্যন্ত এগিয়ে যেতে হবে।

মনে রাখতে হবে সব কিছুরই শেষ আছে এবং শেষের পর ফলাফল আছে।  সেই ফলাফল পর্যন্ত আপনাকে কাজ করে যেতে হবে।

 

সবশেষে বলবো বাংলাদেশে ডিজিটাল মার্কেটিং এর ভবিষ্যত অনেক ভালো।  তবে ডিজিটাল মার্কেটিং একদিনের  কাজ না। এটি অনেক ধৈর্য্য এবং পরিশ্রমের কাজ।  আমি ডিজিটাল মার্কেটিং এর একজন ছাত্র হিসেবেই আপনাকে নিরাশ করছি না।

বরং আমার কথা শুনে কাজে নামলে আমি বুজে  নিবো আপনার  অনেক পরিকল্পনা রয়েছে।  নিজেকে গুগলের জগতে দেখতে চাইলে  নেমেই পড়ুন ডিজিটাল মার্কেটিং  এ।  এবং অন্যদের জানিয়ে দিন আপনিও পারেন।

নিজেকে যদি অন্যদের কাছে তুলে ধরতে চান,  তাহলে অবশ্যই ডিজিটাল মার্কেটিং করতে  হবে । আজই তৈরী করুন আপনার  স্বপ্নের গোল।

ডিজিটাল মার্কেটিং কি ? কিভাবে করবেন ?